Header Ads

Header ADS

ঋণে ডুবে পাকিস্তান, বিশ্বের ৪৩টি দেশের GDP-র সমান ঋণ ইসলামাবাদের ঘাড়ে

জম্মু ও কাশ্মীর থেকে সংবিধানের ৩৭০ অনুচ্ছেদ প্রত্যাহারের পর ভারতের সঙ্গে একতরফা ভাবে বাণিজ্যিক সম্পর্ক ছিন্ন করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে পাকিস্তান। এর জেরে পাকিস্তানের আভ্যন্তরীণ পরিস্থিতি আরও খারাপ হতে পারে আশঙ্কা করছেন অনেকে। বখরি ইদের আগে সেদেশে বাড়তে পারে বাজারদর। শুধু দ্বিপাক্ষিকভাবেই নয়, আন্তর্জাতিক মঞ্চেও ধাক্কা খেয়েছে পাকিস্তান। জম্মু - কাশ্মীরে ভারতের পদক্ষেপ নিয়ে পাকিস্তানের প্রশ্নের উত্তরই দেননি রাষ্ট্রসংঘের নিরাপত্তা পরিষদের মুখপাত্র জোয়ানা রেনেকো। টলোমলোভাবে পাকিস্তানের পাশে রয়েছে শুধু চিন। আর তার মধ্যেই প্রকাশ্যে এসেছে পাকিস্তানের অর্থনীতি নিয়ে এক চাঞ্চল্যকর তথ্য। হিসাব করে দেখা গিয়েছে, ঋণে ডুবে থাকা পাকিস্তানের ধারের পরিমান বিশ্বের ৪৩টা দেশের জিডিপি-র সমান। তার পরও ভারতের বিরুদ্ধে হুঙ্কার ছেড়ে চলেছে তারা। ইন্টারন্যাশনাল মনিটরি ফান্ড-এর রিপোর্ট অনুসারে ২০১৮ সালে ভারতের জিডিপি ছিল ২.৭১ লক্ষ কোটি মার্কিন ডলার। যা বিশ্বের সপ্তম সব থেকে বড় অর্থনীতি। ওদিকে পাকিস্তান তালিকায় রয়েছে ৩৯ নম্বরে। তাদের জিডিপি ০.৩১ লক্ষ কোটি মার্কিন ডলার। গোটা বিশ্বের কাছে পাকিস্তানের ঋণের পরিমান ১০৫০০ কোটি ডলার। ২০০৪ সালে পাকিস্তানের ঋণের পরিমান ছিল ৩০০০ কোটি ডলার।
হিসেব করে দেখা যাচ্ছে, বিশ্বের অন্তত ৪৩টি দেশের জিডিপি-র সমান ঋণ পাকিস্তানের। এর মধ্যে রয়েছে সামোয়া, সেশেল্স, গাম্বিয়া, অ্যান্টিগা, বারমুডা, ভুটান, মধ্য আফ্রিকার দেশগুলি, লাইবেরিয়া, বুরুন্ডি, সুরিনেম, দক্ষিণ সুদান, সিয়েরা লিওন, মাবদ্বীপ, বারবাডোজ, ফিডির মতো দেশগুলি। এদের মোট জিডিপি ১০৭০০ কোটি ডলার। ইসলামাবাদ ভারতের সঙ্গে বাণিজ্যিক সম্পর্ক ছিন্ন করতেই চিন্তায় পড়েছেন সেদেশের বাসিন্দারা। সেখানে ইতিমধ্যে প্রতি কেজি টোম্যাটোর দাম ৩০০ পাকিস্তানি রুপি। পাকিস্তান বাণিজ্যিক সম্পর্ক ছিন্ন করতেই রফতানির ওপর ২০০ শতাংশ কর বসিয়ে দিয়েছে ভারত। যার জেরে আকাশ ছুঁতে শুরু করেছে নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিসের দাম। 

No comments

Powered by Blogger.