Header Ads

Header ADS

রোজভ্যালি কাণ্ডে মদন মিত্রকে দফায় দফায় জেরা করল ইডি

সারদার পর এ বার রোজভ্যালি কাণ্ডে নজরে মদন মিত্র। সোমবার ইডি দফতরে তৃণমূল নেতা মদনকে তলব করা হয়। তাঁকে দফায় দফায় জেরা করা হয়েছে। এর আগে সারদা মামলায় রাজ্যের প্রাক্তন মন্ত্রী মদন মিত্রকে গ্রেফতার করেছিল সিবিআই।জানা যাচ্ছে, রোজভ্যালি কর্ণধার গৌতম কুণ্ডু ও সংস্থার সঙ্গে কী যোগ তা খতিয়ে দেখতে মদনকে জিজ্ঞাসাবাদ করেন তদন্তকারীরা। তাঁর বিরুদ্ধে আয় বহির্ভূত আর্থিক লেনেদেনের তথ্য মিলেছে বলে দাবি ইডির। এ দিন জিজ্ঞাসাবাদের জন্য তলব করা হয় তৃণমূলের লোকসভা সাংসদ শতাব্দী রায়কেও। আগামী ১২ জুলাই তাঁকে হাজিরা দিতে বলা হয়েছে।জানা যাচ্ছে,  এদিন সিজিও কমপ্লেক্সে বেলা ১২ টার মধ্যে বীরভূমের দু’বারের সাংসদ শতাব্দী রায়কে ডাকা হয়েছে। তদন্তকারীরা জানতে পেরেছেন, সারদার একটি সংস্থার ব্র্যান্ড অ্যাম্বাসাডর ছিলেন শতাব্দী। ওই সংস্থার সঙ্গে আর্থিক লেনদেন হয় বলে দাবি কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা সংস্থার। কী কারণে আর্থিক লেনদেন হয়েছে তা জানতেই তলব বলে সূত্রে খবর। সারদা চিটফান্ড আর্থিক দুর্নীতি মামলায় এর আগেও শতাব্দী রায়কে ডাকা হয়।সম্প্রতি সারদা ও রোজভ্যালি নিয়ে তত্পর হতে দেখা গিয়েছে সিবিআই-কে। শুক্রবারই সল্টলেকের সিজিও কমপ্লেক্সে হাজিরা দেন চিত্রশিল্পী শুভাপ্রসন্ন এবং প্রাক্তন সিপিএম নেতা লক্ষণ শেঠ। সারদা কাণ্ডে শুভাপ্রসন্নের যোগ রয়েছে বলে দাবি তদন্তকারীদের। একটি চ্যানেলে যুক্ত থাকার সুবাদে সারদা সংস্থার সঙ্গে কোনও আর্থিক লেনদেন হয়েছিল কিনা তা নিয়ে প্রায় ৪ ঘণ্টা জিজ্ঞাসাবাদ চলে। উল্লেখ্য, ২০১৭ সালে জুলাইয়ে বীরভূমের সাংসদকে তলব করেছিল সিবিআই। তাঁর বাড়িতে গিয়ে প্রায় ৩ ঘণ্টা ধরে জিজ্ঞাসাবাদ চালান তদন্তকারীরা।

No comments

Powered by Blogger.